Auto Image Slider

দাব্বাতুল আরদ সম্পর্কে আকীদা: কেয়ামতের আলামত

দাব্বাতুল আরদ সম্পর্কে আকীদা:

পশ্চিম দিক থেকে সূর্য উদয়ের দিন বা একদিন পর মক্কা শরীফের সাফা পাহাড় ফেটে অদ্ভত  আকৃতির এক জন্তু বের হবে। একে বলা হয় দাব্বাতুল আরদ (ভূমির জন্তু) এ প্রাণীটি মানুষের সঙ্গে কথা বলবে। সে অতি দ্রুত বেগে সারা পৃথিবী ঘুরে আসবে।

সে মু‘মিনদের কপালে একটি নূরানী রেখা টেনে দিবে, ফলে তাদের চেহারা উজ্জ্বল হয়ে যাবে এবং বেঈমানদের নাকের অথবা গর্দানের উপর সীল মেরে দিবে ,ফলে তাদের চেহারা মলিন হয়ে যাবে। সে প্রত্যেক মু‘মিন ও কাফেরকে চিনতে পারবে।

এ জন্তুর আবির্ভাব কিয়ামতের সর্বশেষ আলামত সমূহের অন্যতম। উপরোক্ত বর্ণনা ব্যতীত দাব্বাতুল আরদের আকার-আকৃতি সম্পর্কে ইবনে কাছীরে আরও বিভিন্ন রেওয়ায়েত উদ্বৃত করা হয়েছে, যার অধিকাংশই নির্ভরযোগ্য নয়। কুরআন শরীফে দাব্বাতুল আরদের বহিঃপ্রকাশ সম্বন্ধে বলা হয়েছেঃ

অর্থাৎ, যখন ঘোষিত শাস্তি তাদের নিকট আসবে, তখন আমি ভূমি থেকে বের করব এক জীবযা তাদের সাথে কথা বলবে এ জন্য যে, মানুষ আমার নিদর্শনে বিশ্বাস করে না। (সূরাঃ ২৭ –নামলঃ ৮২)

হাদীছে দাব্বাতুল আরদের বহিঃপ্রকাশ সম্বন্ধে এসেছে-

অর্থাৎ, হযরত আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, তিনটি জিনিস যখন প্রকাশ পাবে, তখন ইতিপূর্বে যে ঈমান আনেনি বা ঈমান অবস্থায় কোন ভাল কাজ করেনি তার ঈমান তার কোন উপকারে আসবেনা। সে তিনটি জিনিস হল- পশ্চিম দিক থেকে সূর্যোদয়, দাজ্জাল ও দাব্বাতুল আরদ-এর আত্মপ্রকাশ।

দাব্বাতুল আরদ সম্পর্কে আকীদা

যৌন তত্ত্ব

গোপন মাসাআলা

আমাদের ইউটিউব ইউটিব চ্যানেল

Leave a Comment