Auto Image Slider

দাজ্জাল আগমন সম্পর্কে ইসলামী আকীদা

দাজ্জাল আগমন সম্পর্কে ইসলামী আকীদা

দাজ্জাল শব্দটি আরবী থেকে উদ্ভুত, যার অর্থ ধোঁকা ও প্রতারণা। অতএব দাজ্জাল শব্দের অর্থ প্রতারক, ধোঁকাবাজ। আল্লাহ তা‘আলা শেষ যামানায় লোকদের ঈমান পরীক্ষা করার জন্য একজন লোককে প্রচুর ক্ষমতা প্রদান করবেন। বিভিন্ন সহীহ হাদীছের বর্ণনা অনুযায়ী তার এক চোখ কানা আর এক চোখ টেরা থাকবে, চুল কোঁকড়া ও লাল বর্ণের হবে।

সে খাটো দেহের অধিকারী হবে। তার কপালে লেখা থাকবে কাফের। শিক্ষিত অশিক্ষিত নির্বিশেষে সকল মু‘মিনই সে লেখা পড়তে পারবে। সে ইয়াহূদী বংশোদ্ভুত হবে। ইরাক ও শাম দেশের মাঝখানে তার আবির্ব ঘটবে। তিরমিযী শরীফের এক সহীহ রেওয়ায়েতের বর্না অনুযায়ী খোরাসানে তার আবির্ভাব ঘটবে।

তিরমিযী শরীফের এক সহীহ রেওয়ায়েতের বর্ননা অনুযায়ী খোরাসানে তার আবির্ভাব হবে। প্রথমে সে নবুওয়াতের দাবী করবে। তারপর ইস্পাহানে যাবে, সেখানে ৭০ হাজার ইয়াহূদী তার অনুগামী হবে, তখন খোদায়ী দাবী করবে। লোকেরা চাইলে সে বৃষ্টি বর্ষণ করে দেখাবে, মৃতকে পর্যন্ত জীবিত করে দেখাবে।

কৃত্রিম বেহেশত দোযখ তার সঙ্গে থাকবে, কিন্তু প্রকৃত পক্ষে তার বেহেশত হবে দোযখ আর তার দোযখ হবে বেহেশত। সে আরও অনেক অলৌকিক কান্ড দেখাতে পারবে, যা দেখে কাঁচা ঈমনের লোকেরা তার দলভুক্ত হয়ে জাহান্নামী হয়ে যাবে। এক ভীষণ ফেৎনা ও এক ভীষণ পরীক্ষা হবে সেটা।

দাজ্জাল একটা গাধার উপর সওয়ার হয়ে ঝড়ের বেগে সমগ্র ভূখন্ডে বিচরণ করবে এবং চল্লিশ দিনের মধ্যে মক্কা, মদীনা ও বায়তুল মুকাদ্দাস ব্যতীত (এসব এলাকায় সে প্রবেশ করতে পারবে না, ফেরেশতাগণ এসব এলাকার পাহারায় থাকবে।) সব স্থানে ফেৎনা বিস্তার করবে।

বুখারী ও মুসলিম শরীফের হাদীছে দাজ্জালের বর্ণনা দিয়ে বলা হয়েছে,

এ হাদীছের সারকথা হল: সব নবীই তাঁদের সম্প্রদায়কে দাজ্জালের ব্যাপারে সতর্ক করে গেছেন। তবে নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একটা বিশেষ তথ্য প্রদান করেছেন যে, দাজ্জালের একচোখ কানা হবে ।

( অতএব তার খোদা হওয়ার দাবী গ্রহণযোগ্য নয়।কেননা, আল্লাহ তা‘আলা কানা নন।) নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, দাজ্জালের সাথে কৃত্রিম বেহেশত দোযখ থাকবে, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে তার বেহেশত হবে দোযখ আর তার দোযখ হবে বেহেশত। তার কপালে লেখা থাকবে কাফের। শিক্ষিত অশিক্ষিত নির্বিশেষে সকল মু‘মিনই সে লেখা পড়তে পারবে। 

হযরত মাহদীর সময় তার আবির্ভাব হবে। সে সময় হযরত ঈসা (আঃ) আকাশ থেকে অবতরণ করবেন এবং তাঁরই হাতে দাজ্জাল নিহিত হবে। আবির্ভাবের পর দাজ্জাল সর্বমোট ৪০ দিন দুনিয়াতে থাকবে।

দাজ্জাল আগমন সম্পর্কে ইসলামী

যৌন তত্ত্ব

গোপন মাসাআলা

আমাদের ইউটিউব ইউটিব চ্যানেল

Leave a Comment